মতামত

ম্যারাডোনা থেকে ম্যাসি

আসিফুল ইসলাম, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: ৯০-এর ইতালী বিশ্বকাপ ফাইনালে জার্মানীর সাথে খেলায় আর্জেন্টিনার পরাজয় এবং ম্যারাডোনার কান্না দেখে সেই শৈশবে আমার মত লাখো কিশোরের মনটা ভেঙ্গে চুরমার হয়েছিল। সেই থেকে নিজ প্রিয় দলের বিশ্বকাপ জয়ের আকাঙ্ক্ষায় প্রতিটি বিশ্বকাপ আসরে প্রহর গুনেছি। কিন্তু ১৯৯০-২০১৮ পর্যন্ত আর্জেন্টাইন দলের ফিফা বিশ্বকাপ জয় অধরাই রয়ে যায়। অবশেষে সুদীর্ঘ ৩৬ বছর পর ২০২২ -এর কাতার ফিফা বিশ্বকাপ ফাইনালে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনার জয় এবং ম্যাসির হাতে ফিফা বিশ্বকাপ দেখে সেই শৈশবের কষ্টের অবসান হলো আমাদের। আজ আমাদের অনেকের ছেলেমেয়েরা কিশোর বয়সে উপনিত। তারাও আর্জেন্টিনা সমর্থন করে। আমরা সবাই ম্যাসির ফুটবল যাদুতে পুলকিত এবং বিশ্বকাপ জয়ে উল্লসিত।
নিজ দলকে বহু দূরে থেকেও সমর্থন করে বিশ্বে সারা ফেলেছে বাংলাদেশের আর্জেন্টাইন সমর্থকরা। এই নিয়ে আর্জেন্টাইন রিপোর্টার ভিডিও বানিয়েছে। দেশটির ফুটবল ক্লাব ও প্রশাসন থেকেও বাংলাদেশে ভক্তদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তারা। ফাইনাল ম্যাচটিতে বাংলাদেশী সমর্থকদের উল্লাস কাভার করার জন্য আর্জেন্টিনা থেকে সংবাদকর্মী পাঠিয়েছে।
কাতারে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ের সঙ্গে সঙ্গে রাজধানী ঢাকা, বিভিন্ন বিভাগীয় এবং জেলা শহরে আর্জেন্টিনার পক্ষে বিজয় এবং আনন্দ মিছিল হয়েছে। আর্জেন্টিনা থেকেও বাংলাদেশে আর্জেন্টিনা ফুটবলের দ্বিগুণ সমর্থক আছে। এটা নিঃসন্দেহে আর্জেন্টিনা ফুটবল টিম, ম্যারাডোনা এবং ম্যাসির জন্য বিরাট গৌরবের। বাংলাদেশ হচ্ছে আর্জেন্টিনার সুপার ফ্যান। তাই ম্যাসি এবং আর্জেন্টাইন ফুটবল টিমের উচিত বাংলাদেশী আর্জেন্টিনা সমর্থকদের ধন্যবাদ জানাতে বিশ্বকাপসহ বাংলাদেশে শুভেচ্ছা সফরে আসা। ২০২২ ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ জয়ে আর্জেন্টিনা ফুটবল টিমকে এবং আর্জেন্টিনাবাসীদের আন্তরিক অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা। ভামোস আর্জেন্টিনা।

[email protected]
#Good_Luck_Bangladesh
#positivityonly

Back to top button