আন্তর্জাতিকলীড

এল সালভেদরে সহিংসতায় নিহত ৭৬, জরুরি অবস্থা জারি

টাইমস ২৪ ডটনেট, আন্তর্জাতিক ডেস্ক: এল সালভেদরে মাত্র দুই দিনের সহিংসতায় ৭৬ জন নিহত হয়েছেন। এরপরই রোববার (২৭ মার্চ) দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করেছে মধ্য আমেরিকার এই দেশটি। পরে প্রেসিডেন্ট নায়িব বুকেলের অনুরোধে এই জরুরি অবস্থার অনুমোদন দেন দেশটির আইপ্রণেতারা। এল সালভেদর গত কয়েকদিনে গ্যাং-সম্পর্কিত ক্রমবর্ধমান সহিংসতা ও রক্তপাতের মুখোমুখি হয়েছে এবং জরুরি অবস্থা জারির ফলে দেশটিতে পুলিশের ক্ষমতার বিস্তৃতি বাড়বে ও নাগরিক স্বাধীনতা সীমাবদ্ধ হবে। সোমবার (২৮ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।
প্রতিবেদনে বার্তাসংস্থাটি জানিয়েছে, মধ্য আমেরিকার ছোট এই দেশটিতে সম্প্রতি দলগত সহিংসতা ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। গত শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া এই সহিংসতায় ৭৬ জন প্রাণ হারিয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। এর মধ্যে গত শনিবার নিহত হয়েছেন ৬২ জন, আর শুক্রবার প্রাণ হারানো মানুষের সংখ্যা ১৪ জন। এরপরই রোববার জরুরি অবস্থা জারি করে দেশটির কর্তৃপক্ষ।
এদিকে শুক্র ও শনিবারের টানা সহিংসতার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রোববার অ্যাসল্ট রাইফেল ও বুলেটপ্রুফ ভেস্ট পরে রাস্তায় নামেন এল সালভেদরের পুলিশ ও সেনা সদস্যরা। দেশটির সিকিউরিটি ক্যাবিনেট জানিয়েছে, মারা সালভাত্রুচা (এমএস-১৩) ও ব্যারিও ১৮ নামক দু’টি পৃথক গ্যাংয়ের চার শতাধিক সদস্যকে আটক করা হয়েছে। এই দুই গ্যাংয়ের সদস্যদের মাধ্যমেই সাম্প্রতিক এই সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে বলে অভিযোগ রয়েছে। এল সালভেদরের ন্যাশনাল সিভিল পুলিশ টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় জানিয়েছে, ‘অপরাধী দলগুলোর বিরুদ্ধে চলমান এই যুদ্ধ আমরা পরিত্যাগ করবো না। এই ঘটনার জন্য দায়ী অপরাধীদের গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় না আনা পর্যন্ত আমরা শান্ত হবো না।’
এএফপি বলছে, শুক্র ও শনিবারের টানা সহিংসতার পর এল সালভেদরে এক মাসের জরুরি অবস্থা অনুমোদন করতে দেশের পার্লামেন্টের প্রতি আহ্বান জানান প্রেসিডেন্ট নায়িব বুকেলে। জরুরি অবস্থা চলাকালীন দেশটিতে বেশ কিছু স্বাধীনতা সীমাবদ্ধ করে রাখা যায়।
বার্তাসংস্থাটি বলছে, জরুরি অবস্থা ঘোষণার মাধ্যমে উন্মুক্ত সমাবেশ সীমাবদ্ধ করার পাশাপাশি আদালতের অনুমতি ছাড়াই চিঠিপত্র খোলা বা টেলিফোন কল ও ই-মেইল আদান-প্রদানে বাধা দিতে পারবে মধ্য আমেরিকার এই দেশটির সরকার।
এল সালভেদরে অপরাধী দলগুলোর মধ্যে সহিংসতা এবং এসব ঘটনায় প্রাণহানির বিষয়টি অনেকটাই সাধারণ। গত বছরের নভেম্বরে একই ধরনের সহিংসতায় মাত্র তিনদিনে ৪৫ জন নিহত হয়েছিলেন। দেশটির সরকারি তথ্য অনুযায়ী, ২০২১ সালে এল সালভেদরে ১ হাজার ১৪০টি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা রেকর্ড করা হয়েছে।
অর্থাৎ গত বছর প্রতি এক লাখ বাসিন্দার মধ্যে গড়ে ১৮ জন করে প্রাণ হারিয়েছেন। এর আগের বছর অর্থাৎ ২০২০ সালে মধ্য আমেরিকার এই দেশটিতে হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছিলেন ১ হাজার ৩৪১ জন।

সূত্র: এএফপি।

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button