আন্তর্জাতিকলীড

সিদ্ধান্ত ছাড়াই রাশিয়া-ইউক্রেন আলোচনা শেষ, পুতিনের ৪ শর্ত

টাইমস ২৪ ডটনেট: বেলারুশ সীমান্তে রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে প্রথম পর্বের আলোচনা কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই শেষ হয়েছে। রাশিয়া বলেছে, এতে উভয় পক্ষ আলোচনা অব্যাহত রাখতে সম্মত হয়েছে। আবার দু’এক দিনের মধ্যে তারা আলোচনায় বসবে। সোমবার স্থানীয় সময় দুপুর ১টার একটু আগে উভয় পক্ষের প্রতিনিধিরা বেলারুশে আলোচনায় বসেন। দীর্ঘ পাঁচ ঘণ্টা ধরে ওই আলোচনা চলে। আলোচনা শেষে উভয় পক্ষের প্রতিনিধিরা পরামর্শের জন্য নিজ নিজ রাজধানীতে রওয়ানা হয়েছেন। বৈঠক শেষে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির উপদেষ্টা মিখাইল পোডোলিয়াক সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘ইউক্রেন ও রাশিয়ার প্রতিনিধিরা প্রথমদফা আলোচনা করেছেন। এবারের আলোচনায় তাদের মূল লক্ষ্য ছিল যুদ্ধবিরতি এবং ইউক্রেনের ভূখণ্ডে চলমান যুদ্ধ অবসানের পথ খুঁজে বের করা। প্রতিনিধিরা এসব বিষয় নিয়ে আন্তরিকতার সঙ্গে আলোচনা করে একটি পথ খুঁজে বের করতে বদ্ধপরিকর ছিলেন। সুনির্দিষ্ট কিছু বিষয় নিয়ে ভবিষ্যতে আলোচনার বিষয়েও তারা একমত হয়েছেন। এখন তারা পরামর্শ করার জন্য যার যার রাজধানীতে ফিরে যাচ্ছেন। উভয়পক্ষ আরো এক দফা বৈঠকে বসা নিয়ে আলোচনা করেছে, যেখানে এসব আলোচনার আরো আগ্রগতি হতে পারে।”বৈঠকের আগে এক ভিডিও ভাষণে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কি রাশিয়ান সেনাদের অস্ত্র জমা দেয়া এবং তার দেশকে অবিলম্বে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য করে নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।
এদিকে, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, “নিরাপত্তা নিয়ে রাশিয়ার বৈধ উদ্বেগ বিবেচনায় নেওয়া হলে সমঝোতা সম্ভব।” ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রনের সাথে সোমবার এক টেলিফোন আলাপের পর এক বিবৃতিতে ক্রেমলিন এ তথ্য জানিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, পুতিন ফরাসি প্রেসিডেন্টকে বলেছেন, “ক্রিমিয়ার ওপর রাশিয়ার সার্বভৌমত্ব মেনে নিতে হবে, ইউক্রেনকে নিরস্ত্রীকরণ করতে হবে, নাৎসীমুক্তকরণের সমাধান হতে হবে এবং ইউক্রেন যেন একটি নিরপেক্ষ রাষ্ট্র থাকে তার নিশ্চয়তা দিতে হবে।“অন্যদিকে, ফরাসি প্রেসিডেন্টের অফিস থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইমানুয়েল ম্যাক্রন রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনকে ফোন করে ইউক্রেনে অবিলম্বে যুদ্ধ বন্ধ করতে বলেছেন।
ফরাসি বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সংঘাত যাতে আয়ত্তের বাইরে না চলে যায় তার জন্য প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রন রুশ প্রেসিডেন্টকে যোগাযোগ অব্যাহত রাখার অনুরোধ করেছেন। এসময় ম্যাক্রনের অনুরোধ রাখতে তার সদিচ্ছা প্রকাশ করেছেন প্রেসিডেন্ট পুতিন।#

সূত্র: পার্সটুডে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button