চলতি সংবাদজাতীয়

যুক্তরাষ্ট্র যেতে ‘ঠোঁট সেলাই’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: অভিবাসীরা নিজেদের ঠোঁট সেলাই করতে একে অপরকে সহায়তা করছেন। সুঁই ও প্লাস্টিকের সুতা দিয়ে এই কাজ করছেন। এতে গড়িয়ে পড়া রক্ত মুছে ফেলতে ব্যবহার করা হচ্ছে অ্যালকোহল। আর তরল খাবারের জন্য মুখের সামান্য কিছু জায়গা ফাঁকা রাখা হচ্ছে। মার্কিন সীমান্তে যাওয়ার অনুমতি পেতেই মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) মেক্সিকোর দক্ষিণ সীমান্তে অভিবাসন প্রত্যাশীরা এমন ‘অমানবিক’ কাজ করেন।
বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই অভিবাসন প্রত্যাশীদের অধিকাংশই মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলো থেকে এসেছেন। মার্কিন সীমান্তে পৌঁছাতে মেক্সিকান অভিবাসন কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানাতে তারা এমন ‘অমানবিক’ উপায় বেছে নেন।

অভিবাসন প্রত্যাশীদের দাবি, তাদের যেন যুক্তরাষ্ট্র সীমান্তের দিকে যেতে দেওয়া হয়।

বিক্ষোভের একজন কর্মী ইরিনিও মুজিকা বলেন, ‘বিক্ষোভের অংশ হিসেবে অভিবাসীরা ঠোঁট সেলাই করছেন, যাতে জাতীয় অভিবাসন ইনস্টিটিউট দেখেন যে, তারা মানুষ এবং তাদের শরীর থেকেও রক্ত ঝরছে’। মেক্সিকোর মাইগ্রেশন এজেন্সি (আইএনএম) বলছে, দক্ষিণ শহরে তাদের অফিসে প্রতিদিন শতাধিক আবেদন জমা পড়ছে।
সাম্প্রতিক বছরগুলোতে সহিংসতা ও দারিদ্র্যের জন্য মেক্সিকোতে আসা অভিবাসীর সংখ্যা লাফিয়ে বাড়ছে। মেক্সিকোতে অভিবাসন প্রত্যাশীর আবেদন সংখ্যা রেকর্ড সংখ্যক ৮৭ শতাংশ বেড়েছে। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হাইতিয়ান ও হন্ডুরানরারা আবেদন করছেন।
জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা (ইউএনএইচসিআর) সম্প্রতি বলেছে, অভিবাসন প্রত্যাশীদের জন্য মেক্সিকোর নতুন সাহায্য কর্মসূচি গ্রহণ করা প্রয়োজন। বিশেষ করে ভেনেজুয়েলানদের জন্য, যারা মেক্সিকোতে ভিসার জন্য আবেদন করছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button