সারাদেশ

‘নির্বাচনে শামীম ওসমান খুব কি জরুরি?’

টাইমস ২৪ ডটনেট: নাসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগের এমপি শামীম ওসমান ‘ খুব কি বেশি জরুরি’, এমন প্রশ্ন রেখেছেন সরকারদলীয় মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াত আইভী।
মঙ্গলবার প্রচারণাকালে নির্বাচনে শামীম ওসমানের অবস্থান কী, সমর্থন আছে কি না গণমাধ্যমের এমন প্রশ্নে বেশ বিরক্তি প্রকাশ করেন আইভী।এ সময় তিনি বলেন, ‘তাকে খুব কি জরুরি আজকে আমাদের এই নির্বাচনে। উনি একজন এমপি। উনি তো ইচ্ছা করলেও প্রচারে আসতে পারবেন না। তাই আমরা নির্বাচনের মধ্যেই থাকি।’

দলের মধ্যে কোনো বিভাজন আছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে আইভী বলেন, আওয়ামী লীগের মধ্যে কখনওই বিভাজন ছিল না। তৃণমূল সবসময় একত্রিত ছিল। নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা থাকতে পারে। কিন্তু আওয়ামী লীগের মধ্যে কোনো বিভাজন নেই। আগেও ছিল না এখনও নেই। আমরা সবাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শের অনুসারী, শেখ হাসিনার কর্মী। আমাদের মতভেদ থাকতে পারে, পার্থক্য থাকতে পারে। দিন শেষে আমরা সকলেই শেখ হাসিনার কর্মী।

মঙ্গলবার সেলিনা হায়াত আইভী সিদ্ধিরগঞ্জের ১নং ও ২নং ওয়ার্ডে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত গণসংযোগ করেন। এ সময় ‘নৌকা নৌকা’ শ্লোগানে গণসংযোগের স্থানগুলো মুখরিত হয়ে উঠে।

ডা. আইভী গণসংযোগে গেলে নানা বয়সী ভোটাররা তার সঙ্গে যোগ দেন। এ সময় নারী ভোটাররা তাকে এক নজর দেখতে ছুটে আসেন। এ সময় আইভীকে ফুলের তৈরি নৌকা দিয়ে স্থানীয় নেতাকর্মীরা শুভেচ্ছা জানান।

এ সময় স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমুর আলমকে বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টার পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া প্রসঙ্গে ডা. আইভী বলেন, এটা একটা দলের কৌশল হতে পারে। এ নিয়ে আমার কোনো মাথাব্যথা নেই। এটা উনাদের দলীয় কৌশল। আমি মাঠে লড়ছি। আমি এভাবেই শেষ পর্যন্ত লড়বো।

তিনি আরও বলেন, স্থানীয় সরকারে কাজ করতে সবসময়ই চ্যালেঞ্জ থাকে। এখানে সবধরনের চ্যালেঞ্জই আছে। এখানে আলাদাভাবে কিছু বলা যাবে না। যে কোনো কাজেই চ্যালেঞ্জ আছে।

আইভী বলেন, জনগণ আমার সঙ্গে আছে। যেখানেই যাচ্ছি দলমত নির্বিশেষে সকল মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে ছুটে আসছে।

এক প্রশ্নের জবাবে আইভী বলেন, ‘ষড়যন্ত্র দেখার জন্য সময় আমার নেই। আমি সারাদিন মানুষের সঙ্গে থাকছি। পূর্বেও নির্বাচন করেছি, বহু ষড়যন্ত্র হয়েছে। জনগণ তার রায়ের মাধ্যমে সব ষড়যন্ত্রকে ভেস্তে দিয়েছে। ষড়যন্ত্র দেখার জন্য আমার দল আছে, দলের নেতৃবৃন্দ আছে। আমার সঙ্গে বোঝাপড়া সাধারণ মানুষের।

জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী নৌকার প্রার্থী বলেন, জনগণ আমার সঙ্গে আছে। যেখানেই যাচ্ছি দলমত নির্বিশেষে সকল মানুষের স্বতঃস্ফূর্তভাবে আসছে।

এ সময় প্রচারণায় তার সঙ্গে ছিলেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক ইয়াছিন মিয়া, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ওমর ফারুক, কাউন্সিলর প্রার্থী মাহমুদুর রহমান, সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থী মাকসুদা মোজাফফর প্রমুখ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button