জাতীয়রাজনীতি

তারুণ্যের উৎসবে পরিণত ঠাকুরগাঁওয়ের বিএনপি সমাবেশ

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: তারুণ্যের উৎসবে পরিণত হয় ঠাকুরগাঁওয়ের বিএনপির মহাসমাবেশ। কাঁপন ধরানো শীতের মধ্যেও শত শত তরুণের উপস্থিতিতে মুখরিত ছিল সমাবেশস্থল।খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তাকে বিদেশে উন্নত চিকিৎসার সুযোগ দেওয়ার দাবিতে গত ২২ ডিসেম্বর থেকে ৯ দিন সারা দেশের জেলাগুলোতে বিক্ষোভ কর্মসূচির ডাক দেয় বিএনপি। ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলে কর্মসূচি। তারই অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় ঠাকুরগাঁও পাবলিক ক্লাব মাঠে জেলা বিএনপি দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে এক সমাবেশের আয়োজন করে।এই অনুষ্ঠানে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ কেন্দ্রীয় নেতার উপস্থিত ছিলেন।
সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবির জনসভায় বয়োবৃদ্ধ ও মধ্যবয়সী মানুষের উপস্থিতি তেমন চোখে পড়েনি।তবে তরুণদের উপস্থিতি যেন সমাবেশ হয়ে উঠে মহোৎসবে। সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমানও এর সত্যতা মেনে নিয়ে বলেন, জনসভায় প্রায় ৮০ ভাগই ছিল তরুণ।
জেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক মামুন উর রশিদ বলেন, বিএনপির জন্ম হয়েছিল তারুণ্যের শক্তি দিয়ে ।অন্যায়ের প্রতিবাদে সাড়া দিয়ে শিকলমুক্ত জীবনের প্রত্যাশায় তরুণরা এসেছিলেন বিএনপির সমাবেশে।
তিনি বলেন, বৈরী আবাহাওয়ায় বয়স্করা আসেননি তেমন একটা ।তবুও আশাহত নয় বিএনপি। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেছেন, আন্দোলনের উষ্ণতা ছড়িয়ে পড়েছে।কেউ ঘরে রবে না। সময় হলে নিশি রাতের সরকারের বিরুদ্ধে সবাই রুখে দাঁড়াবেন।
জনসভা দেখতে আসা ঠাকুরগাঁও পৌরশহরে ওয়ার্ড পর্যায়ের আওয়ামী লীগের নেতা নূর ইসলাম বলেন, উঠতি বয়সি তরুণরা পরিনাম না ভেবে সভায় এসেছিল। বয়স্করা জেনেই বিএনপি থেকে ফিরিয়ে নিয়েছে মুখ। তবে বিএনপির কোনো নেতাই একথা মানতে নারাজ।
সূত্র: যুগান্তর অনলাইন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button