21.7 C
New York
Tuesday, September 28, 2021

ঢাকায় রাস্তায় খোঁড়াখুঁড়িতে জনদুর্ভোগ চরমে

Nagad
টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: বাংলাদেশের ঢাকায় অন্যতম এক জনদুর্ভোগের বিষয় হলো রাস্তা খোঁড়াখুঁড়ি। ঢাকার দুই সিটিতে সব মিলিয়ে রাস্তার পরিমাণ দুই হাজার ৫০০ কিলোমিটার। সমন্বয়হীনতা ও অদক্ষতা এবং অযোগ্যতার কারনে প্রতিবছরই খোঁড়াখুঁড়ি করা হয় রাজধানীর অধিকাংশ রাস্তা। ঢাকা শহরের ক্রমবর্ধমান যানজটের জন্য যে সব বিষয়কে দায়ী করা হয় রাস্তায় যত্রতত্র খোঁড়াখুঁড়ি তার অন্যতম। শহরের যানজট নিরসনে হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ফ্লাইওভার নির্মাণসহ এ পর্যন্ত বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নসহ নানা ও উদ্যোগ গ্রহণ করলেও বাস্তবে এর কোনো লক্ষ্যনীয় অগ্রগতি দেখা যাচ্ছে না। রাজধানীতে পয়:নিষ্কাশন ব্যবস্থা অনেকটাই অকার্যকর হয়ে পড়ায় সামান্য বৃষ্টিতেই অনেক রাস্তায় হাঁটুপানি জমে যানচলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ে। এখন বৃষ্টিপাত না থাকলেও শুধুমাত্র খোঁড়াখুঁড়ির কারণে রাস্তাগুলো যান চলাচলের অযোগ্য থাকায় ট্রাফিক জ্যাম অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে বেড়ে গেছে। যানজট নিরসনে সম্ভাব্য সবকিছু করতে নগরকর্তাদের আন্তরিকতা ও প্রচেষ্টা নিয়ে কোনো প্রশ্ন না থাকলেও যানজটের অন্যতম প্রধান কারণ হিসেবে রাস্তা খোঁড়াখুঁড়ি নিয়ন্ত্রণে তাদের সক্ষমতা প্রশ্নবিদ্ধ।

রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকায় চলছে ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন ও সড়ক সংস্কারের কাজ। বসানো হচ্ছে পয়োনিষ্কাশন পাইপ। এজন্য খোঁড়া হয়েছে চারটি সড়ক। ফলে এলাকাটিতে প্রতিনিয়ত সৃষ্টি হচ্ছে যানজট। অসহনীয় ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে এলাকাবাসী ও পথচারীদের। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত রাজধানীর তেজগাঁও শিল্প অঞ্চল এলাকা ঘুরে এমন চিত্রই চোখে পড়ে। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্ভুক্ত রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকা। এই এলাকার চারটি সড়কে ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন কাজ চলছে। হ্যাপি হোমসের মোড়, নিকেতন ২ নম্বর গেট, বিটাকের মোড় থেকে দীপিকার মোড় ও তেজগাঁও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মোড় থেকে রেজিস্ট্রি অফিসের মোড় পর্যন্ত সড়কে চলছে এই কাজ। এজন্য গর্ত করে মাটি তুলে রাখা হয়েছে সড়কে। সড়কের কোথাও কোথাও একটি লাইন চালু এবং অপর লাইনটি বন্ধ করে রাখা হয়েছে। সড়কগুলোর ফুটপাত ভাঙাচোরা ও গর্তে ভরা। নেই হাঁটার পরিবেশ। এতে সড়কে পথচারী ও যান চলাচলে সৃষ্টি হয় তীব্র জট। পথচারীদের পোহাতে হচ্ছে দুর্ভোগ, ফুটপাত ব্যবহার করতে না পেরে প্রধান সড়কে নেমে পড়েন অনেকে। এতেও সৃষ্টি হয় যানজট।

স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, সড়কে উন্নয়ন কাজের কারণে এলাকাবাসীদের পোহাতে হচ্ছে অসহনীয় দুর্ভোগ। সবচেয়ে বেশি যানজট সৃষ্টি হয় অফিসের সময়। সকাল ৮টা থেকে শুরু করে ১০টা পর্যন্ত রাস্তায় সৃষ্টি হয় তীব্র যানজট। এ সময় কেউ যদি সংস্কার কাজ চলা সড়কে যানবাহন নিয়ে ঢুকে পড়েন, তাহলে তার গন্তব্যে পৌঁছাতে এক থেকে দেড় ঘণ্টা সময় লেগে যায়। দীর্ঘক্ষণ থাকতে হচ্ছে জ্যামে। এছাড়াও জাতীয় নাক-কান-গলা ইনস্টিটিউট, তেজগাঁও থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও মাদক নিরাময় কেন্দ্রে আসা ব্যক্তিদেরকেও পোহাতে হচ্ছে দুর্ভোগ। অ্যাম্বুলেন্সে করে রোগী নিয়ে আসলেও ঘণ্টার পর ঘণ্টা জ্যামে পড়ে থাকতে হচ্ছে। এ সময় মনে হয় এই সংস্কার হওয়া থেকে না হওয়াই অনেক ভালো ছিল।

কিছুদিন আগে করোনা সংক্রমণ রোধে দেয়া হয়েছিল কঠোর লকডাউন। সে সময় এই কাজ করলে খুব ভালো হতো। সমন্বয়হীনতার অভাবেই প্রতিনিয়ত রাজধানীবাসীকে পড়তে হয় চরম ভোগান্তিতে। সড়কের কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত চলাফেরা করে এই এলাকায় শান্তি পাওয়া যাবে না।

পথচারী নজরুল ইসলাম বলেন, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকায় বর্তমানে অফিস টাইমে সকাল ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত ভয়ানক জ্যাম লেগেই থাকে। জ্যাম থেকে বের হতে যে কারোরই সময় লাগে এক থেকে দেড় ঘণ্টা। বৃষ্টির দিনে তো অবস্থা আরো খারাপ হয়। কাদা আর লালমাটির কারণে সড়ক দিয়ে হাঁটা যায় না। আধা ঘণ্টা মুষলধারে বৃষ্টি হলে সড়কে জমে যায় হাঁটুপানি, আর আমাদের পোহাতে হয় অসহনীয় দুর্ভোগ।

এ বিষয়ে ডিএনসিসির ২৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শফিউল্লাহ শফি বলেন, তার ওয়ার্ডের চারটি এলাকায় উন্নয়ন কাজ চলছে। এই কাজ শেষ হলে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চলে বর্ষায় কোথাও পানি জমবে না। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যেসব স্থানে কাজ চলছে সেখানে সড়কে মাটি ফেলে রাখা হচ্ছে না, সঙ্গে সঙ্গেই সরিয়ে ফেলা হচ্ছে। যদি কোথাও মাটি ফেলে স্তূপ করে রাখা হয়, তাও দ্রুত সরিয়ে দেয়া হবে। উন্নয়ন কাজের জন্য এলাকাবাসীদের কিছুটা দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এদিকে যানজট নিরসনে এবং রাস্তায় যত্রতত্র খোঁড়াখুঁড়ির বিড়ম্বনা থেকে মুক্তি পেতে ঢাকা সিটি কর্পোরেশনে কর্মরত ওয়াসা, ডেসা, ডেসকো, বিটিসিএল, তিতাস গ্যাস, রাজউকসহ অন্তত ২৬টি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের কাজের মধ্যে সমন্বয় করার দাবি উঠছে দীর্ঘদিন ধরে। এমনকি মেয়ররাও এই দাবি পূরণে ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালুর প্রতিশ্রুতি দিলেও মেয়াদ শেষ হয়ে এলেও সেই কাঙ্ক্ষিত সমন্বয় এখনো অধরাই রয়ে গেছে। সরকার যখন জাতির সামনে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার রাজনৈতিক রূপকল্প তুলে ধরছেন, তখন খোদ রাজধানী শহরের ১০ মিনিটের পথ পার হতে দুইঘন্টা সময় পার করতে হচ্ছে নগরবাসিকে। এ এক দু:সহ বাস্তবতা। রাজধানী শহরকে এহেন বাস্তবতা থেকে মুক্ত করতে না পারলে দেশের উন্নয়ন অগ্রগতির সব সম্ভাবনা ব্যহত হতে পারে। রাজধানী শহরকে বসবাসের অযোগ্য ও অর্থনৈতিকভাবে স্থবির রেখে কোন জাতি এগিয়ে যেতে পারেনা। সরকারি ও সেবাদানকারী স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানগুলোর নানাবিধ উন্নয়ন কাজের পাশাপাশি বাড়ি, হাউজিং, বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণের কারণেও রাস্তা খোঁড়াখুঁড়ি ও রাস্তার উপর নির্মাণ সামগ্রি ফেলে রাখার কারণে যানজট ও জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হয়। সরকারি নির্মাণ ও সংস্কারের সময়সীমা রক্ষার দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থা ও কর্মকর্তারা তাদের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করলে এ দুর্ভোগ অনেকাংশে কমে আসত।

বার্ষিক উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নসহ সরকারি কাজকর্মে সংশ্লিষ্ট সংস্থা ও দফতরগুলোর অদক্ষতা ও অযোগ্যতা এখনো প্রশ্নাতীত। সারাদেশে হাজার হাজার কিলোমিটার সড়ক-মহাসড়ক ভগ্নদশায় পড়েছে। এসব রাস্তায় যান চলাচল ঝুঁকি ও ঝক্কিপূর্ণ। রাজধানী ঢাকা শহর ছাড়াও দেশের প্রতিটি বিভাগীয় ও জেলাশহরের অবস্থা প্রায় অভিন্ন। একদিকে রাস্তা ও নগর উন্নয়নের নামে রাজস্ব থেকে শত শত কোটি টাকার বরাদ্দ অবাধ লুটপাট চলছে। সংশ্লি্লষ্ট মন্ত্রণালয় ও দফতরের একশ্রেণীর কর্মকর্তা, বাস্তবায়নকারী সংস্থার কর্মকর্তা, ইঞ্জিনিয়ার ও ঠিকাদারদের যোগসাজশে সমন্বিত লুটপাট, অদক্ষতা ও অস্বচ্ছতার শিকার নাগরিক জীবন। রাস্তা খোঁড়াখুঁড়ির পেছনে একদিকে সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোর অস্বচ্ছতা, কর্মকর্তাদের অদক্ষতা ও অযোগ্যতা প্রমাণ করে। অন্যদিকে এর পেছনে রয়েছে কোটি কোটি টাকার দুর্নীতির যোগসাজশ। উন্নয়ন কর্মকা- বাস্তবায়নে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা এবং নির্ধারিত সময়সীমা ও মান রক্ষায় প্রয়োজনীয় কার্যকর নজরদারি ও আপসহীন ভূমিকা ছাড়া এ অবস্থা থেকে উত্তরণ সম্ভব নয়। নগর বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নগরীর সেবা সংস্থাগুলোর সমন্বয়হীনতা ও সড়ক খনন নীতিমালা অনুযায়ী কাজ না করায়, প্রতিবছরই বর্ষা মৌসুমে যানজট ও জলাবদ্ধতা দেখা দেয়। আর সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা বলছেন, আইন অনুযায়ী সেবা সংস্থাগুলো কাজ না করায় প্রতিবছরই এমন পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হয় নগরবাসীকে। আর নগরবাসীর অভিযোগ ঢাকার প্রায় সবক’টি কাজ গুটিকয়েক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের হাতে রয়েছে। কিন্তু প্রতিষ্ঠানগুলোর পর্যাপ্ত পরিমাণ লোকবল নেই। যে কারণে কাজে ধীরগতি হচ্ছে।

Related Articles

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আজ

টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: দেশের দূরদর্শী ও বলিষ্ঠ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আজ। ১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি।...

প্রথম ধাপে ১৬০ ইউপি ও ৯ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ চলছে

টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: বাংলাদেশে প্রথম ধাপের ১৬০ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) ও ৯ পৌরসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। সোমবার সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।...

অস্ট্রেলিয়া ও আমেরিকার সঙ্গে সম্পর্ককে সংকটাপন্ন ঘোষণা করল ফ্রান্স

টাইমস ২৪ ডটনেট, আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আমেরিকা ও অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে সম্পর্ককে সংকটাপন্ন বলে ঘোষণা করেছে ফ্রান্স। ফ্রান্সের কাছ থেকে সাবমেরিন কেনার চুক্তি বাতিল করে দিয়ে...

Stay Connected

0ভক্তমত
0অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
0গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব
- Advertisement -

Latest Articles

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আজ

টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: দেশের দূরদর্শী ও বলিষ্ঠ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আজ। ১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি।...

প্রথম ধাপে ১৬০ ইউপি ও ৯ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ চলছে

টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: বাংলাদেশে প্রথম ধাপের ১৬০ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) ও ৯ পৌরসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। সোমবার সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।...

অস্ট্রেলিয়া ও আমেরিকার সঙ্গে সম্পর্ককে সংকটাপন্ন ঘোষণা করল ফ্রান্স

টাইমস ২৪ ডটনেট, আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আমেরিকা ও অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে সম্পর্ককে সংকটাপন্ন বলে ঘোষণা করেছে ফ্রান্স। ফ্রান্সের কাছ থেকে সাবমেরিন কেনার চুক্তি বাতিল করে দিয়ে...

তিনদিনের মহাকাশ ভ্রমণ শেষে পৃথিবীতে ফিরলেন চার সাধারণ পর্যটক

টাইমস ২৪ ডটনেট, আন্তর্জাতিক ডেস্ক: টানা তিনদিন মহাকাশ পরিভ্রমণ শেষে পৃথিবীতে ফিরেছেন চার জন পর্যটক। স্থানীয় সময় শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা উপকূলে নিরাপদে...

বাংলাদেশে ইউপি নির্বাচন : বিনা ভোটে আ.লীগের ৪৩ প্রার্থী জয়ী

টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: বাংলাদেশে ষষ্ঠ ধাপে স্থগিত থাকা ১৬১টি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বিনা ভোটে ৪৩টি ইউপিতে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন।...