চার্লসকে রাজা ঘোষণা করলো কানাডা

টাইমস ২৪ ডটনেট: মাকে চিরতরের জন্য হারিয়ে ব্রিটিশ সিংহাসনে অভিষিক্ত চার্লস ফিলিপ আর্থার জর্জকে আনুষ্ঠানিকভাবে রাজা ঘোষণা করেছে কানাডা। শনিবার দেশটিতে ব্রিটিশ রাজার প্রতিনিধি ও কানাডার গভর্নর জেনারেলের সরকারি বাসভবনে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তৃতীয় চার্লসকে আনুষ্ঠানিকভাবে রাজা ঘোষণা করেছে কানাডা।এর আগে, শনিবার স্থানীয় সময় সকালের দিকে যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনের সেন্ট জেমসেস প্রাসাদে অ্যাকসেশন কাউন্সিল এক বৈঠকের পর তৃতীয় চার্লসকে রাজা ঘোষণা করে। ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের ৭০ বছরের রাজত্বের অবসান ঘটে গত বৃহস্পতিবার তার চিরবিদায়ের মাধ্যমে। আর সেই সাথে দেশটির নতুন রাজার দায়িত্বপ্রাপ্তির পথ খুলে যায় প্রিন্স চার্লসের।
মা রানি এলিজাবেথের মৃত্যুর পরপরই ব্রিটেনের রাজতন্ত্রের উত্তরাধিকারী প্রিন্স চার্লস তার স্থলাভিষিক্ত হন বৃহস্পতিবার। পরে শনিবার ব্রিটেনের সেন্ট জেমসেস প্রাসাদে অ্যাকসেশন কাউন্সিল রানির উত্তরাধিকার ঘোষণা করে। এ সময় ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষর করেন রাজতন্ত্রের উত্তারাধিকারী উইলিয়াম। আর তা প্রত্যক্ষ করেন তার স্ত্রী ক্যামিলা এবং ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস।
বিবিসি বলছে, ব্রিটেনের জ্যেষ্ঠ রাজনীতিক, প্রধানমন্ত্রী, ক্যান্টারবুরির আর্চ বিশপ, বিচারক, সরকারি কর্মকর্তাদের নিয়ে অ্যাকসেশন কাউন্সিল গঠিত। শনিবার এই কাউন্সিলের সদস্যরা রাজার সার্বভৌম সরকারি বাসভবন সেন্ট জেমসেস প্রাসাদে এক বৈঠকে মিলিত হন। পরে তাদের উপস্থিতিতে তৃতীয় চার্লসকে নতুন রাজা ঘোষণা করা হয়। ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এবারই ঐতিহাসিক এই ঘোষণা টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়েছে।
গত বৃহস্পতিবার ৯৬ বছর বয়সে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুর পর স্বয়ংক্রিয়ভাবে যুক্তরাজ্য, কানাডাসহ ১৪টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধান হয়ে যান চার্লস ফিলিপ আর্থার জর্জ।
রানির মৃত্যুতে ১০ দিনের দীর্ঘ শোক ঘোষণা করেছে কানাডা। কানাডা ১৮৬৭ সালে ব্রিটেনের উপনিবেশ থেকে মুক্ত হলে ১৯৮২ সাল পর্যন্ত ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের অধীনে ছিল। তবে দেশটি এখনও সাবেক ব্রিটিশ সাম্রাজ্যভুক্ত দেশগুলোর সংস্থা কমনওয়েলথের সদস্য এবং কমনওয়েলথের সদস্য দেশগুলোর প্রধান হিসাবে রয়েছেন ব্রিটিশ রাজা।
কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো ও গভর্নর জেনারেল মেরি সাইমন মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর নতুন সার্বভৌম ঘোষণার একটি আদেশে স্বাক্ষর করেছেন শনিবার। চার্লসকে রাজা ঘোষণার পর বৈঠকে উপস্থিত সদস্যরা ‘সৃষ্টিকর্তা রাজাকে রক্ষা করুন’ বলে স্লোগান দেন।

সূত্র: রয়টার্স।

Related Articles

Back to top button