৫শ’ ছিন্নমূল ও দুস্থ মানুষকে প্রতিদিন খাবার দিচ্ছে ডিএমপি’র উত্তরা বিভাগ

শামীম চৌধুরী, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা : রাজধানীতে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রার্দুভাবের কারণে অসহায় মানুষের তালিকা করে প্রতিদিন ৫শ’ ছিন্নমূল ও দুস্থ মানুষকে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) উত্তরা বিভাগ। পুলিশের বেতন ও রেশনের টাকায় এই খাবার দেয়া হচ্ছে। শনিবার পুলিশের উত্তরা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) নাবিদ কামাল শৈবাল বাসস’কে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, ‘করোনা দুর্যোগের সময় আমরা সমাজের অসহায় মানুষের পাশে সামর্থ্য অনুযায়ী দাঁড়াবার চেষ্টা করছি। খাবারের অভাবে অনেকেই ছোটখাটো অপরাধে জড়িয়ে পড়তে পারে। খাবার বিতরণ কার্যক্রম অপরাধ নিয়ন্ত্রণেও কাজ করবে। এতে করে অপরাধ কর্মকান্ড অনেকটা কমে আসবে বলে আমরা আশা করছি’।
তিনি আরও জানান, নিজেদের রেশন এবং বেতনের অর্থের মাধ্যমে এই খাবারের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। দুস্থ ও অসহায় মানুষের তালিকা করে প্রত্যেককে টোকেন দেয়া হয়েছে। সামাজিক দূরুত্ব নিশ্চিত করতে টোকেনের ঠিকানা অনুযায়ী পুলিশ সদস্যরা খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন। ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলামের নির্দেশনা অনুযায়ী এই খাবার দেয়া হচ্ছে।
উত্তরা বিভাগের পুলিশের ডিসি আরও বলেন, অনেকে ত্রানের জন্য জনসম্মুখে না এসে তারা সাহার্য্যের জন্য পুলিশকে ফোন করছেন। পুলিশের পক্ষ থেকে তাদের পরিবারের সদস্যদের জন্য ৫ কেজি চাউল, ডাল, তেল, চিনি, আলু ও সাবান সামগ্রি বাড়িতে পৌছে দিচেছ।
এছাড়া ডিএমপি কমিশনারের নির্দেশক্রমে ৫০টি থানায় প্রতিদিন ৫০জন হারে প্রায় আড়াই হাজার দুস্থ, অসহায়, গরিব ও মেহনতি মানুষের মাঝে খাবার পৌছে দেয়া হচেছ বলে বাসস’কে জানিয়েছে উত্তরা বিভাগের ডিসি নাবিদ কামাল শৈবাল।
পুলিশের উত্তরা বিভাগের এয়ারপোর্ট জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) খন্দকার রেজাউল হাসান জানান, উত্তরা বিভাগের ৬টি থানা উত্তরা পূর্ব, উত্তরা পশ্চিম, তুরাগ, উত্তরখান, দক্ষিণখান ও বিমানবন্দর থানা এলাকায় ১শ’ ৮০জন করে প্রকৃত অসহায় মানুষের তালিকা করা হয়েছে। প্রতিদিন রান্না করে ৬টি থানায় তালিকাভুক্তদের কাছে খাবার পৌঁছানো হয়।
দক্ষিণখান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শিকদার মোহাম্মদ শামীম জানান, দক্ষিণখানে ডিএমপির পক্ষ থেকে ১শ’ জন ও থানার পক্ষ থেকে ৮০জন মোট ১৮০ জন গরিব, দুস্থ ও অসহায় মানুষের মধ্যে খাবার বিতরণ করা হচেছ।
তুরাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: নুরুল মোত্তাকিন বলেন, তুরাগ থানা এলাকায় প্রতিদিন ১৮০জন গরিব, ছিন্নমূল, দুস্থ ও অসহায় মানুষের মধ্যে খাবার পৌঁছে দেয়া হচ্ছে।
এদিকে, উত্তরা পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তপন চন্দ্র সাহা জানান, শনিবার সাড়ে ১১টার দিকে উত্তরা ১৩ নম্বর সেক্টরে প্রায় ৭০জন হিজড়ার মধ্যে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম।
এছাড়া পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি মো: হাবিবুর রহমান এবং ডিএনসিসি ৫১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ শরীফুর রহমানসহ পুলিশের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তারাও এসময় উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র: বাসস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

etiler escort taksim escort beşiktaş escort escort beylikdüzü