স্বর্ণলতা

মোহিত চৌধূরী
স্বর্ণলতা দেখেছ নিশ্চয়ই?
মহীরুহ কিংবা পুচ্ছ বৃক্ষের প্রাণ চোষে।
লক লকে গ্রীবায় অমাবস্যা পূর্ণিমার,
অগ্নি জ্বেলে জ্বলে ওঠে বৃক্ষের শাঁখে প্রশাখে।
মৃদুলের সমীরণে শুভ্র নাচন নাচে ঐ পত্র পল্লবে।
মূল নেই কান্ড নেই শাখা নেই প্রশাখা নেই!
সুনিপুণ সুদৃঢ় ঐক্যের বীজগণিতের সূত্রসম,
পরম নির্ভরতায় আঁকড়ে আছে বৃক্ষের প্রাণ জুড়ে।
ঝড় ঝঞ্জাট প্লাবন বন্যা অনাবৃষ্টি, বৃষ্টি খড়তাপ।
স্বর্ণলতার কি আসে যায়?
শোষকের লকলকে গ্রীবায় প্রাণ চোষে,
অবিনাশী শোষিত বাড়ন্ত বৃক্ষের সর্বনাশ।

রাষ্ট্র বৃক্ষের বিনাশ যজ্ঞে রাষ্ট্রের প্রাণ চোষে।
অনিয়ম দূর্নীতি সন্ত্রাস ধর্মীয় মৌলবাদ।
শ্রেনী ঘৃনা শ্রেণী বৈষম্য অবিচার।
নৈতিক অবক্ষয় অসাম্য বিচারহীনতার সংস্কৃতি।
নিয়ম অনিয়ম উৎশৃংখলের বেড়াজালে বন্দী।
শিকল বাঁধা অন্ন বস্ত্র বাসস্হান শিক্ষা চিকিৎসা।
অন্নালয়ে —
বস্ত্রালয়ে–
গৃহালয়ে—-
শিক্ষালয়ে—
চিকিৎসালয়ে—-
ধর্মালয়ে —–
দেবালয়ে —–
বেশ্যালয়ে——
আরে সালা সর্বালয়ে অনিয়ম! শোষণ উৎপীড়ন!

স্বর্ণলতার কোমলপ্রাণ বেষ্টিত নীতিবাদ।
রাষ্ট্রবৃক্ষ তোমাকে শোষণে বোধিব।
রুখবে আমায় কে?
রাজ দন্ড? ন্যায় দন্ড? পুঁজিবাদ?
আমিই স্বর্নলতা আমিই সাম্রাজ্যবাদ।
আমার লকলকে উদ্যত গ্রীবার কাল ফণী,
রাষ্ট্রবৃক্ষে ক্রমশ ছোবল মারিবে মহাকাল।

ফ্লোরেন্স সিটি ইটালী।
শনিবার রাত্রি।
১০ঃ৫৮মিঃ
২এপ্রিল ২০২০ইং।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *