ফুলবাড়ীয়ায় হলুদের বাম্পার ফলনে কৃষকের মুখে হাসি

রফিকুল ইসলাম, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: রান্নাঘরে হলুদ, বিয়ে বাড়িতেও হলুদ। হলুদ মিশে আছে বাঙালির খাদ্যাভ্যাস ও সাজগোজের সংস্কৃতিতে। অর্থনৈতিক দিক থেকেও হলুদ চাষ লাভজনক। এ কারণে বাংলাদেশের ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়ায় অনেক চাষি বাণিজ্যিক ভিত্তিতে হলুদ চাষ করে সফল হচ্ছেন। চলতি মৌসুমে ফুলবাড়ীয়ায় হলুদের বাম্পার ফলন হওয়ায় কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে। আবহাওয়া অনুকূল থাকায় ফুলবাড়ীয়ায় হলুদের বাম্পার ফলন হয়েছে।
স্থানীয় কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, হলুদ বহুল ব্যবহৃত একটি মসলা ফসল। তাই চাহিদার সাথে জনপ্রিয়তা বেশি। এছাড়াও হলুদের অনেক ভেষজ গুণও রয়েছে। প্রায় সব ধরনের মাটিতে হলুদ চাষ করা যায়। তবে দো-আঁশ ও বেলে-দো-আঁশ মাটি হলুদ চাষের জন্য অতি উত্তম। তাই ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়ীয়ায় হলুদ চাষে লাভবান হচ্ছে কৃষকরা। ধানী, ডিমলা ও সিন্দুরী নামে হলুদের ৩’টি উন্নত জাত রয়েছে। ডিমলা জাতটি স্থানীয় জাতের তুলনায় ৩ গুণ ফলন বেশী দেয়। পাহাড়ে সাধারণত ডিমলা জাতের হলুদ বেশি হয়ে থাকে। তবে ফুলবাড়ীয়ায় ধানী হলুদ বেশি হয়। ধানী হলুদ সবচেয়ে ভাল।
স্থানীয় হলুদ চাষীরা জানায়, প্রতিবছর ফুলবাড়ীয়ায় উৎপাদিত হাজার হাজার মেট্রিক টন হলুদ যাচ্ছে ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায়। চাহিদা বেশি থাকার কারণে ব্যবসায়ীরা হলুদ নিতে আসে ফুলবাড়ীয়ায়। ব্যবসায়ীরা হলুদ কিনে বিদেশে রফতানি করে আসছে। বিদেশেও ফুলবাড়ীয়ার হলুদ খুব জনপ্রিয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *