ঢাকায় স্বস্তির বৃষ্টি

শামীম চৌধুরী, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: বাংলাদেশে কয়েক দিনের ভ্যাপসা গরমের পর মঙ্গলবার বেলা ১১টায় হঠাৎ এক পশলা বৃষ্টি স্বস্তি এনে দিয়েছে ঢাকার নগরজীবনে। ভ্যাপসা গরমের হাঁসফাঁস কাটিয়ে ঝিরঝিরে অনুভূত হচ্ছে শরীরে। ঈদের দিন থেকে কয়েকটা দিন প্রচণ্ড গরমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল ঢাকার নগরজীবন।
ঢাকা ও আশপাশের এলাকায় ঘণ্টাব্যাপী ঝমঝমি বৃষ্টিতে শীতল হয়েছে প্রকৃতি। তবে হঠাৎ করে আসা এ বৃষ্টিতে সঙ্গে ছাতা না থাকায় কাকভেজা হয়ে যান অনেকে। বৃষ্টির অজুহাতে রিকশাচালকরাও হাঁকিয়ে নেন বাড়তি ভাড়া। ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় দেখা গেছে এমন চিত্র।
ভরা বর্ষার এই সময়েও গত কয়েক দিন বৃষ্টি হয়নি। প্রচণ্ড রোদের সঙ্গে বাতাস নেই। ঢাকা ও খুলনাসহ অনেক জায়গায় বয়ে যাচ্ছিল মৃদু তাপপ্রবাহ। এরই মধ্যে সাগরে লঘুচাপ থাকায় বাতাসে আর্দ্রতা বেড়ে যাওয়ায় ভ্যাপসা গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা হয় বাংলাদেশের মানুষ। বাংলাদেশের সমুদ্রবন্দরগুলোকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।
সোমবার যশোরে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ওঠে ৩৮ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর ঢাকায় ছিল ৩৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সোমবার রাতেও প্রচণ্ড গরম ছিল। মঙ্গলবার সকালেও তাপ কমেনি। জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল। বেলা ১১টার পর ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় স্বস্তির বৃষ্টি হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

etiler escort taksim escort beşiktaş escort escort beylikdüzü