করোনাভাইরাসে মৃত্যু বেড়ে ৩১১৯

শামীম চৌধুরী, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: চীন থেকে গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত ৩ হাজার ১১৯ জন মারা গেছে। শুধু চীনেই মৃতের সংখ্যা ২ হাজার ৯৪৪ জন। চীনের বাইরে মারা গেছে ১৭৫ জন। চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি মারা গেছে ইরানে ৬৬ জন, এর পর ইতালিতে ৫২, দক্ষিণ কোরিয়ায় ২৮, জাপান ৬, ডায়মন্ড প্রিন্সেস জাহাজে ৭, হংকং ২, যুক্তরাষ্ট্র ৬, ফ্রান্স ৩, ফিলিপাইন, থাইল্যান্ড, সান ম্যারিনো, অস্ট্রেলিয়া ও তাইওয়ানে একজন করে মারা গেছে। এ ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৯০ হাজার ৪৪১ জনে দাঁড়িয়েছে। চীনে আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ১৫১ জন এবং চীনের বাইরে ১০ হাজার ২৯০ জন।আক্রান্তদের মধ্যে ৭ হাজার ৯৪ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এখন পর্যন্ত ৪৮ হাজার ১২৮ জন সুস্থ হয়েছে।


চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন জানায়, দেশটিতে নতুন করে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ১২৫ জন এবং মারা গেছে ৩২ জন। এ পর্যন্ত আক্রান্ত ৮০ হাজার ১৫১ জন এবং মারা গেছে ২ হাজার ৯৪৪ জন।
হুবেইপ্রদেশের রাজধানী উহানে একটি বুনোপ্রাণী বিক্রির বাজার থেকে ভাইরাসটির উৎপত্তি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। চীন হুবেইপ্রদেশকে পুরো দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন করে রেখেছে। ওই অঞ্চলের সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। চীনের সব প্রদেশসহ বিশ্বের ৭০টিরও বেশি দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। চীনের বাইরে এ পর্যন্ত ১০ হাজার ২৯০ জন শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ায় ৪ হাজার ৩৩৫ জন, যা চীনের বাইরে সর্বোচ্চ।


সূত্র জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় নিহত হয়েছে ৭২ জন। চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি মারা গেছে ইরানে ৫৪, ইতালিতে ৪১, দক্ষিণ কোরিয়ায় ২১, জাপান ৬, ডায়মন্ড প্রিন্সেস জাহাজে ৭, হংকং ও ফ্রান্স ২, ফিলিপাইন, থাইল্যান্ড, সান ম্যারিনো, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া ও তাইওয়ানে একজন করে। এ ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৮ হাজার ৫৯১ জনে দাঁড়িয়েছে। চীনে আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ২৬ জন এবং চীনের বাইরে ৮ হাজার ৫৬৫ জন। চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন জানায়, দেশটিতে নতুন করে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ২০২ জন এবং মারা গেছে ৪২ জন। এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৮০ হাজার ২৬ জন এবং মারা গেছে ২ হাজার ৯১২ জন।বিশ্বের অনেক দেশই ভাইরাসটি বিস্তার প্রতিরোধের ব্যবস্থা নিলেও নতুন নতুন অনেক দেশেই করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে।


জার্মানির বার্লিনে এই ভাইরাসের প্রথম আক্রান্ত ব্যক্তির সন্ধান পাওয়া গিয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির স্বাস্থ্য অধিদফতর। মিসরে নতুন করে আরও অনেকে আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।
অন্যদিকে দক্ষিণ কোরিয়ায়, সিওল থেকে প্রায় ৩০০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে দায়েগুতে ৫ জন মারা যাওয়ার পর এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ২২ জনে দাঁড়িয়েছে।

করোনাভাইরাসে মৃত্যু বেড়ে ৩১১৯
চীনের সব প্রদেশসহ বিশ্বের ৬০টিরও বেশি দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। চীনের বাইরে এ পর্যন্ত ৮ হাজার ৫৬৫ জন শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ায় ৩ হাজার ৭৩৬ জন, যা চীনের বাইরে সর্বোচ্চ।ভাইরাস সংক্রমণের কারণে চীন ভ্রমণে সতর্কতা, নিষেধাজ্ঞা এবং কড়াকড়ি আরোপ করেছে অনেক দেশ।
মিসর: মিসরের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলেছে, নতুন করে আরও এক ব্যক্তি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, যাকে কোয়ারান্টাইনের জন্য হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি প্রয়োজনীয় চিকিৎসা নিচ্ছেন। এ জাতীয় রোগীর সংস্পর্শে না আসতে দেশটি কঠোর প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করছে।এটি মিসরের অভ্যন্তরে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার দ্বিতীয় ঘটনা। প্রথম যিনি আক্রান্ত হয়েছেন তিনি চিকিৎসা নিয়ে ভালো হয়েছেন।
মিসরের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হালা জায়েদ বলেছেন, স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ ভাইরাস আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা করা ব্যক্তিদের ১৪৪৩ জনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষ করেছেন।

ছবি: আল জাজিরা
আলজেরিয়া: দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সোমবার বলেছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দুজন ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছেন। একজন নারী এবং তার মেয়ে, যাদের বয়স যথাক্রমে ৫৩ এবং ২৪ বছর। এতে দেশটির ভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে তিনজনে দাঁড়ালো।
যুক্তরাষ্ট্র: দেশটিতে এশিয়া ও ইউরোপের তুলনায় ভাইরাসটি কিছুটা দেরিতে পৌঁছেছে। ওয়াশিংটন করোনাভাইরাসের কারণে দ্বিতীয় ব্যক্তির মৃত্যুর ঘোষণা দিয়েছে।


রোববার মার্কিন কর্তৃপক্ষ এমন সব দেশের নাগরিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে, যারা ইতিমধ্যে এই ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছে। এ ছাড়া কয়েকটি দেশের সঙ্গে তারা ফ্লাইটও বন্ধ ঘোষণা করেছে।
ইসরাইল আরও তিনজন ব্যক্তি নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে বলে ঘোষণা করেছে। এতে দেশটির আক্রান্তদের সংখ্যা ১০ এসে দাঁড়িয়েছে।
ইউরোপ: জার্মানির বার্লিনের স্বাস্থ্য বিভাগ রোববার গভীর রাতে ঘোষণা করেছে, রাজধানীতে করোনাভাইরাসের প্রথম ব্যক্তি আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি তারা নিশ্চিত করতে পেরেছে।


রোগীকে কোয়ারান্টাইন করার জন্য হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে আর যারা রোগীর সংস্পর্শে ছিলেন তারাও আক্রান্ত হয়েছেন কি না জানার জন্য পরীক্ষা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

etiler escort taksim escort beşiktaş escort escort beylikdüzü