এই সময়কার বাংলা সাহিত্যের জনপ্রিয় কবি-বিদ্যুৎ ভৌমিক এর শ্রেষ্ঠ দুটি কবিতা

১ ) জল দর্পণ ও অক্ষর নৌকো~ অহরহ চোখের জলে রোদ ভিজেছে ! খোকা ঘুমালো , পাড়া জুড়ালো পদ্যপাড়ায় বৃষ্টি আমার অনেক কালের উপোষ ভেঙেছে কল্পরোদে সেই যে আমার নতুন কেনা একটা নদী একটা আকাশ ; সেই খানেতে একটু একটু বেড়ে ওঠা জীবন নিয়ে অতলান্তিক পদবীবিহীন তথাকথিত ! আপাতত স্বপ্ন গুলো রাতের ভেতর আয়ুহীন বিরল প্রজাতির ,—- সকাল এলেই অশরীরী শূন্য শূন্য বিমূর্ত এবং মায়াময় কৃপণ । যখন আমি হাত এগিয়ে ধরতে যাব ; ভালোবাসা আমায় দেখে মহাশূন্যে ভীষণ হাসে ; অমানবিক ,— তবুও যেন ভাগ করে দেই এই আমিকে মনের কাছে ,—- অতল থেকে অন্তর্বর্তী স্মৃতির গুলো আন্তর্জাতিক কবিতা গুলো অন্ধকারে ভূতের মতো ছায়াছন্ন ! আমার থেকে কি পেয়েছি ; একাকীত্ব ? বৃষ্টি কি অতীব জরুরী ,—- কারণ বারণ আয়না থেকে দৃশ্যত ভুলে ভরা ! এই আগুনে পুড়ছি আমি ; ভাসছি নিঃসঙ্গ নানামুখী খুব চিনেছি যুবতী নদীর অগুনতি ঢেউ মন হারানো ছলাকলায় প্রবাহমান এইতো আমি ; নৌকো ভাসে অথৈ জলে !! —————————————- ২ ) ~একমাত্র তোরই জন্য~ —— বৃষ্টিটাকে ছুঁয়ে ছুঁয়ে বাতাস শাড়ির পাড় ভেঙেছে অপৌরুষে এটা শুধুই তোর জন্যেই ! কাল থেকে তুই দশটা খাতায় নাম লিখেছিস ভালোবাসায় ,—- অনিশ্চিতে মেঘের ডাকে মন ডুবেছে ; বুকের মধ্যে হৃদয় পাখি চুপটি ব’সে তোরই আশায় এখান থেকেই অবিশ্বাসে পুড়ছি আমি অমানবিক অপ্রমেয় , সেই যে আমি অনেক কালের স্মৃতির ভেতর তোকেই খুঁজি অশেষ আমার কষ্ট টুকু তোর জন্য । এভেবে ঠিক মুখ এঁকেছি , তল ছুঁয়েছি সর্বনাশে যদিও আমার কথা কবিতায় ভাজ পড়েছে অনেক আগেই , তবুও তোকে এই অবেলায় লিখছি চিঠি এইতো ছুঁলাম বৃষ্টি রাতের শরীর তোকে ; আদিগন্ত অথচ তুই সেই অদেখা !! ———————– বিদ্যুৎ ভৌমিক ৬৫/১৭, ফিরিঙ্গী ডাঙা রোড , মল্লিকপাড়া , সূচক-৭১২২০৩ শ্রীরামপুর , হুগলী , পশ্চিমবঙ্গ , ভারত , মোবাইল — ৬২৯০২৪৬৯৩২

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

etiler escort taksim escort beşiktaş escort escort beylikdüzü