ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক সংযুক্ত আরব আমিরাতের নিরাপত্তা বাড়াবে না

টাইমস ২৪ ডটনেট, আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে স্বাভাবিক কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ফলে সংযুক্ত আরব আমিরাতের নিরাপত্তা আগের চেয়ে মোটেও শক্তিশালী হবে না। আরব আমিরাতের শাসকগোষ্ঠী এ ব্যাপারে ভুল ধারনার মধ্যে রয়েছে বলেও তিনি মন্তব্য করেছেন।জারিফ সোমবার তেহরান বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়ার্ল্ড স্টাডিজ ফ্যাকাল্টির এক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে এ বক্তব্য রাখেন। ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “সংযুক্ত আরব আমিরাত নিজের নিরাপত্তা কিনতে ইসরাইলের ছায়াতলে আশ্রয় নিয়েছে; অথচ ইসরাইল নিজেই নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারেনি। ”


ইহুদিবাদী ইসরাইল ও সংযুক্ত আরব আমিরাত গত ১৩ আগস্ট নিজেদের মধ্যে পূর্ণ কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের লক্ষ্যে এক সমঝোতায় উপনীত হয়। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উদ্যোগে এই সমঝোতায় পৌঁছে তেল আবিব ও আবু ধাবি।
ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর একথা উপলব্ধি করা উচিত তারা বহিঃশক্তির কাছ থেকে নিজেদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারবে না; বরং এ অঞ্চলের সবগুলো দেশ সম্মিলিতভাবে নিজেদের নিরাপত্তার গ্যারান্টি দিতে পারবে। জারিফ বলেন, “আপনার প্রতিবেশীর নিরাপত্তা না থাকলে আপনি কখনোই নিরাপদ নন…আমাদের উপলব্ধি করতে হবে আমরা পরস্পরের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারি কিন্তু পরস্পরকে দমিয়ে রাখা বা নিশ্চিহ্ন করে দেয়া সম্ভব নয়।”
ইরানের শীর্ষ কূটনীতিক বলেন, যেকোনো দেশকে তার প্রতিবেশীদের নিয়েই বসবাস করতে হবে; এর কোনো বিকল্প নেই। আঞ্চলিক দেশগুলোই এখানে বসবাস করবে। আমরা বরং নিজেদের মধ্যে সহযোগিতার মাধ্যমে এ অঞ্চল থেকে বহিঃশক্তিগুলোকে বিতাড়িত করতে পারি।

সূত্র: পার্সটুডে।

istanbul medyum

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

etiler escort taksim escort beşiktaş escort escort beylikdüzü